1. [email protected] : Rangpur24.com : Mahfuz prince
রংপুরে ক্লুলেস দোকান চুুরির রহস্য উম্মোচন ও চোর গ্রেফতারসহ চোরাইমাল উদ্ধার - rangpur24
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন

স্যামসাং প্রিমিয়াম ব্র্যান্ড শপ এখন আর,এ,এম,সি শপিং কমপ্লেক্স এর পঞ্চম তলায়। শপ নংঃ- ২,৩,৪ প্রয়োজনেঃ- ০১৩২২৭১৪৮৪৭, ০১৮১৮৭০১৮৭২

রংপুরে ক্লুলেস দোকান চুুরির রহস্য উম্মোচন ও চোর গ্রেফতারসহ চোরাইমাল উদ্ধার

  • Update Time : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১
  • ২০১ Time View

প্রেস ব্রিফিং

কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক ক্লুলেস মোটরসাইকেল চুরির সহস্য উম্মোচন, মোটর সাইকেল চোর গ্রেফতার ও চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার

 

সূত্রঃ কোতয়ালী থানার মামলা নং-৪৮, তারিখ-২৪/০৫/২০২১খ্রিঃ, ধারাঃ- ৩৭৯ পেনাল কোড। অভিযোগকারী জনাব মোঃ আরমান আলী খান থানায় হাজির হইয়া অভিযোগ করেন যে, গত ২৩/০৫/২০২১খ্রিঃ তারিখ সকাল অনুমান ১১.৩০ ঘটিকার সময় কোতয়ালী থানাধীন সেন্ট্রাল রোড কুটুমবাড়ী হোটেলের সামনে রাস্তার পাশের্^ তাহার এ্যাপাচি ১৫০ সিসি মোটর সাইকেল পার্কিং করিয়া রাখিয়া সম্মূখস্থ মার্কেটে প্রয়োজনীয় কাজ করিতেছিলেন। ঐ দিন দুপুর অনুমান ০১.৩০ ঘটিকার সময় মোটর সাইকেল রাখার স্থানে আসিয়া দেখেন তাহার মোটর সাইকেলটি নাই। পরবর্তীতে খোঁজাখুঁজি করিয়া না পাইয়া থানায় আসিয়া এজাহার দায়ের করিলে কোতয়ালী থানার মামলা নং-৪৮, তারিখ-২৪/০৫/২০২১খ্রিঃ, ধারা- ৩৭৯ পেনাল কোড রুজু করতঃ এসআই(নিঃ) মোঃ এরশাদ আলীকে তদন্তকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়। তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলাটি তদন্তকালে জনাব মোঃ আবু মারুফ হোসেন, ডিসি ক্রাইম, আরপিএমপি, রংপুর এর দিক-নির্দেশনায় অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ আব্দুর রশিদ এর নেতৃত্বে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই(নিঃ) মোঃ এরশাদ আলী, এসআই(নিঃ) মনোয়ার হোসেন, এসআই(নিঃ) মজনু মিয়া, এসআই(নিঃ) মামুনুর রশিদ পিপিএম ও সঙ্গীয় এসআই(নিঃ) মোঃ শাহ্ আলম সহ অন্যান্য অফিসার ফোর্স ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করিয়া অত্র মামলার ঘটনার সহিত জড়িত আসামী মোঃ শহিদুল ইসলাম শাহিন (২৮), পিতা-মৃত আঃ খালেক @ বাবুল, মাতা- শাহনাজ, সাং-তাজহাট টিবি হাসপাতালের পাশের্^, থানা-তাজহাট, আরপিএমপি, রংপুর’কে গ্রেফতার করা হয় এবং তাহার হেফাজত হইতে অত্র মামলার চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত আসামী শাহিনকে নিবিড় জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে সে ইতোপূর্বে মোটর সাইকেল চুরি করিয়া আনারুল ইসলাম (৪০), পিতা-মৃত আমানত আলী, সাং-হরিপুর, থানা-মিঠাপুকুর, রংপুর এর নিকট বিক্রয় করিয়াছে মর্মে তথ্য প্রদান করে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে আসামী আনারুল’কে গ্রেফতার করা হয় এবং তাহার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তাহার হেফাজত হইতে আরো ০৩টি চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়। চোরাই উদ্ধার মোটর সাইকেলগুলো কোতয়ালী থানায় আনয়ন করা হইয়াছে। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ শহিদুল ইসলাম শাহিন একজন পেশাদার মোটর সাইকেল চোর। তাহার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা আছে। তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ কোতয়ালী থানা পুলিশের একটি চৌকষ টিমের তৎপরতায় বাদীর চুরি যাওয়া মোটর সাইকেল উদ্ধার সহ সর্বমোট ০৪টি মোটর সাইকেল উদ্ধার হওয়ায় এবং মোটর সাইকেল চোর কে গ্রেফতার করায় একদিকে যেমন অপরাধীকে আইনের আওতায় আনয়ন করা হইয়াছে, অন্যদিকে বাদীর মোটর সাইকেলটি উদ্ধার হওয়ায় স্থানীয় জনসাধারণের নজরে এলে বাদী সহ স্থানীয় জনসাধারণ পুলিশের প্রতি সন্তোষ্টি প্রকাশ করেন।উদ্ধারকৃত মোটর সাইকেলগুলো আইনী প্রক্রিয়ায় প্রকৃত মালিকের নিকট হস্তান্তর করা হইবে। আসামীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মোটর সাইকেল চোর চক্রকে সনাক্তের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

ক্লুলেস দোকান চুুরির রহস্য উম্মোচন ও চোর গ্রেফতারসহ চোরাইমাল উদ্ধার

সূত্রঃ- আরপিএমপি কোতয়ালী থানার মামলা নং-২১,তারিখ-১৫/০৫/২০২১ খ্রিঃ,ধারা- ৪৬১/৩৮০ পেনাল কোড।

গত ১৩/০৫/২০২১খ্রিঃ, রাত্রী অনুমান ০২.০০ ঘটিকা অত্র মামলার বাদী কোতয়ালী থানাধীন হাড়িপট্টি রোড নবাবগঞ্জ বাজারস্থ “ইসমাইল স্টোর”নামক দোকান ঘর বন্ধ করিয়া বাসায় যায় এবং সকাল অনুমান ০৮.০০ ঘটিকার সময় দোকান খুলিয়া দেখিতে পান যে, অজ্ঞাতনামা চোর বা চোরেরা বাদীর দোকান ঘরে টিন ও শ্যার্টার কাটিয়া নগদ টাকা ১৮ লক্ষ টাকা ও ১২ লক্ষ টাকার সিগারেট সহ সর্বমোট ৩০ লক্ষ টাকার মালামাল ও নগদ টাকা চুরি করিয়া নিয়ে যায়। বাদীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুত্রোক্ত মামলা রুজ হইলে এর তদন্তভার চৌকষ তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই (নিরস্ত্র) জনাব মজনু মিয়া এর উপর ন্যস্ত করা হয়। তিনি মামলাটি তদন্তকালে জনাব মোঃ আবু মারুফ হোসেন, ডিসি ক্রাইম, আরপিএমপি, রংপুর এর দিক-নির্দেশনায় জনাব মোঃ শহিদুল্লাহ কাওছার, পিপিএম-সেবা, এডিসি ক্রাইম (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত), আরপিএমপি, রংপুর এর নেতৃত্বে অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ আব্দুর রশিদ, তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই(নিঃ) মজনু মিয়া সহ এসআই/নিঃ মোঃ এরশাদ আলী, এসআই(নিঃ) মনোয়ার হোসেন, এসআই(নিঃ) মামুনুর রশিদ পিপিএমও সঙ্গীয় অফিসার ফোর্স ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করিয়াঅত্র মামলার ঘটনার সহিত জড়িত আসামী ১। মোঃ ইমরান মিয়া (২৬) ও ২। মোঃ হোসেন (৪৫) দ্বয়কে গ্রেফতার করতঃ আসামীদের হেফাজত হইতে বাদীর চুরি যাওয়া বেনসন সিগারেট বিক্রির ৯০ হাজার টাকা ও ৪০ কার্টুন (চুরি হওয়া সমুদয় সিগারেট) বেনসন সিগারেট উদ্ধার করা হয়। এরইমধ্য দিয়ে একটি ক্লুলেসচুুরির রহস্য উম্মোচন হয়। তবে বাদীর দোকান হইতে নগদ ১৮ লক্ষ টাকা চুরি হইয়াছে কিনা এই বিষয়ে তদন্ত অব্যাহত আছে। বাদীর চোরাই মালামাল উদ্ধার সহ প্রকৃত আসামী গ্রেফতারের বিষয়টি ঘটনাস্থলের আশপাশের দোকানদারেরা ও স্থানীয় জনসাধারণের নজরে এলে বাদী সহ স্থানীয় দোকানদারেরা/ জনসাধারণ পুলিশের প্রতি সন্তোষ্টি প্রকাশ করেন। তদন্ত অব্যাহত আছে।

 

যাত্রীবেশে রিক্সা ছিনতাই, ছিনতাইকারী গ্রেফতার, রিক্সা উদ্ধার ও দ্রুতবিচার আইনের ব্যবস্থা গ্রহণ

সূত্রঃ- আরপিএমপি কোতয়ালী থানার মামলা নং-৪৬,তারিখ-২৩/০৫/২০২১খ্রিঃ, ধারা- আইন-শৃঙ্খলা বিঘœকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) (সংশোধন) আইন ২০১৯ এর ৪।

ভিকটিম একজন রিক্সা চালক। গত ২২/০৫/২১খ্রিঃ রাত ১০.১৫ ঘটিকার সময় কোতয়ালী থানাধীন জাহাজ কোম্পানীর মোড়ে রিক্সা নিয়ে দাঁড়ালে আসামী ১। মোঃ দুদু মিয়া(৪৫), পিতা-মৃত আমির হোসেন, মাতা-মৃত আলতা বানু, সাং- শরীফসুন্দর ধামুর চাকলা, থানা-পীরগাছা, জেলা-রংপুর, এ/পি- সাং-কদমতলা (শ্বশুড় আব্দুল কালাম) ওয়ার্ড নং-০৪, থানা-পরশুরাম, আরপিএমপি, রংপুর রিক্সা ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করিয়া এরশাদ মোড়ে যাইবে বলিয়া ভিকটিমের রিক্সায় উঠে। উক্ত আসামী রিক্সায় উঠিয়া কৌশলে রিক্সাটি নিয়েঘটনাস্থল কোতয়ালী থানাধীন ২৪ নং ওয়ার্ডের গুপ্তপাড়া মোড় সংলগ্ন আইন কলেজের সামনে পৌঁছা মাত্রই উক্ত যাত্রীবেশী আসামী দুদু মিয়া ভিকটিম রিক্সা চালক’কে মৃত্যুর ভয় দেখাইয়া ধারালো চাপাতি দিয়ে আঘাত করিয়া আহত করিয়া রিক্সাটি ছিনতাই করিয়া যাইতে থাকে। ঠিক ঐ মূহুর্তে উক্ত স্থানের পাশর্^ দিয়ে যাওয়ার পথে কোতয়ালী থানা পুলিশের মোবাইল পার্টি ভিকটিমের চিৎকার শুনিয়া উক্ত রিক্সার পিছু ধাওয়া করে এবং রিক্সাটি আটক করার জন্য চিৎকার করিলে স্থানীয় জনগণের সহায়তায় কোতয়ালী থানা পুলিশ উক্ত আসামীকে হাতেনাতে গ্রেফতারকরিতে সক্ষম হয়। ভিকটিমের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা ভিকটিমকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের ব্যবস্থা করেন। অতঃপর ছিনতাইকৃত রিক্সাটি উদ্ধার করিয়া ধৃত আসামীসহ থানায় আনয়ন করেন। পরবর্তীতে এই বিষয়ে ভিকটিমের স্ত্রী বাদী হইয়া এজাহার দায়ের করিলে সুত্রোক্ত মামলার রুজু হয় এবং মামলাটির তদন্তভার এসআই(নিঃ) মনোজ কুমার সরকার এর উপর অর্পন করা হয়।কোতয়ালী থানা পুলিশের মোবাইল পার্টির তাৎক্ষনিক তৎপরতার কারণে এবং স্থানীয় জনসাধারণের সচেতনতা ও সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাবের ফলে ছিনতাইকারীকে ঘটনাস্থলের সন্নিকটে ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার সহ ছিনতাইকৃত রিক্সা উদ্ধার এবং আহত ভিকটিমকে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা সম্ভব হইয়াছে।স্থানীয় জনসাধারণ পুলিশের প্রতি সন্তোষ্টি প্রকাশ করেন এবং কোতয়ালী থানা পুলিশের প্রশংসা করেন। এহেন পরিস্থিতিতে স্থানীয় জনসাধারণকে একাকী রিক্সায় ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাত্রীর আচরণ ও প্রকৃতির প্রতি বিশেষ দৃষ্টি রাখিয়া চলাচল করিবার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হইল।

বিশেষ অভিযান প্রসঙ্গে
সম্মানিত পুলিশ কমিশনার, আরপিএমপি, রংপুর মহোদয়ের সার্বিক দিক-নিদের্শনায় উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) এর নেতৃত্বে কোতয়ালী থানা এলাকায় গত ১৯/০৫/২০২১খ্রিঃ তারিখ ০০.০৫ ঘটিকা হইতে ২৫/০৫/২০২১খ্রিঃ তারিখ ২৩.৫৯ ঘটিকা পর্যন্ত চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি ও দস্যুতা সহ মাদক নিয়ন্ত্রণ এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে ১৮ জন বিভিন্ন প্রকৃতির চোর, ০১ জন ছিনতাইকারী, ১৫ জন মাদক সেবী, নিয়মিত মামলায় ১৩ জন সহ সর্বমোট ৪৭জন আসামী গ্রেফতার করিয়া নিয়মিত মামলা সহ অপরাধ সংশ্লিষ্ট আইনে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে। পুলিশের এই অভিযান সমূহ দৃশ্যমান হওয়ায় অপরাধীরা আর অপরাধ করার সাহস পাইতেছে না। ইহাতে জনসম্মুখে পুলিশের ভাবমুর্তি বৃদ্ধি পাইয়াছে। কোতয়ালী থানা পুলিশের এই অভিযান অব্যাহত থাকিবে। থানা পুলিশের এই অভিযান পরিচালনা কালে জনসাধারণকে থানা পুলিশকে সহযোগিতা করিবার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হইল।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 রংপুর২৪ডটকম-সত্য প্রকাশে সারাক্ষণ[email protected]
Md Prince By rangpur24.com