1. [email protected] : Rangpur24.com : Mahfuz prince
কুড়িগ্রামে দাফনের প্রায় পাঁচ মাস পর কবর থেকে নারীর অক্ষত লাশ উদ্ধার! - rangpur24
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০১ অপরাহ্ন
বিভাগীয় সংবাদ শিরোনাম
কিশোর অপরাধ নিমূলে লালমনিরহাটে র‌্যাবের ক্যাম্পেইন রংপুর মহানগর মহিলালীগের ২৯ ওয়ার্ডের সম্মেলন অনুষ্টিত রংপুর জেলা প্রশাসনের সহায়তায় বিক্রি হওয়া শিশুকে ফেরত পেল পরিবার রংপুরে ক্যাপ্টেন বেকোলজি ধাপ শাখার শুভ উদ্বোধন স্থানীয় পর্যায়ে উন্নয়ন করতে হলে পৌরসভার নিজস্ব আয় বৃদ্ধির কোন বিকল্প নাই রংপুরে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত প্রেসিডেন্ট আফরোজা, সেক্রেটারি ফারুক এনএনসি রংপুরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা রংপুরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের প্রতিবাদে স্বাচিপের মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলনে ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান মাঝিপাড়ার বাসিন্দারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরছে রংপুর নগরীর ২০ নং ওয়ার্ডে শান্তি ও স¤প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

কুড়িগ্রামে দাফনের প্রায় পাঁচ মাস পর কবর থেকে নারীর অক্ষত লাশ উদ্ধার!

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৭৯ Time View

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে দাফনের সাড়ে চার মাস পর কবর থেকে অক্ষত অবস্থায় এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। কালজানি নদীর প্রবল ভাঙনে কবরের একপাশ ধসে গিয়ে লাশের একাংশ বেরিয়ে এলে এলাকার মানুষ অক্ষত অবস্থায় লাশটি দেখতে পায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে লাশটি দেখার জন‍্য ওই কবরের পাশে উৎসুক জনতার ভীড় জমে।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার শিলখুড়ি ইউনিয়নের উত্তর ধলডাঙ্গা গ্রামের (৩ নং ওয়ার্ড) সাবেক ইউপি সদস্য আমবাজ আলীর বাড়ির পারিবারিক কবর স্থান থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

জানা গেছে, সাড়ে চার মাস আগে শিলখুড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আমবাজ আলীর স্ত্রী মারা গেলে বাড়ির পাশে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। সম্প্রতি কালজানি নদীর প্রবল ভাঙনে উক্ত কবরের একপাশ ধসে গিয়ে লাশের একাংশ বেরিয়ে এলে এলাকার মানুষ অক্ষত অবস্থায় লাশটি দেখতে পায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে লাশটি দেখার জন্য উৎসুক মানুষের ঢল নামে কবরের পাশে। পরে এলাকাবাসী নদী ভাংনের কবল থেকে ওই অক্ষত লাশটি সরিয়ে নিয়ে এলাকার সামাজিক কবরস্থানে পুনরায় দাফন করেন।

শিলখুড়ি ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা লুৎফর রহমান জানান, লাশ পুনরায় দাফনের কাজে তিনি নিজে নিয়োজিত ছিলেন। লাশের গায়ে কোন রকম দূর্গন্ধ তো দূরের কথা কাফনের কাপড়েও কোন পরিবর্তন তিনি দেখেননি। আগের কাফনেই তাকে পুনরায় সমাহিত করা হয়েছে। মৃত্যুর প্রায় ৫ মাস পরে এ রকম অক্ষত লাশ দেখে তিনি বিস্মিত।

শিলখুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু ইউসুফ বলেন, এ রকম অলৌকিক ঘটনার কথা লোকমুখে শুনেছি কিন্তু আজ আমি নিজে এটার সাক্ষী হয়ে গেলাম। শুনেছি তিনি অত্যন্ত একজন দানশীল মহিলা ছিলেন। তার কাছে হাত পেতে কেউ কখনও নিরাশ হননি। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পাশাপাশি তিনি নিয়মিত তাহাজ্জুদ নামাজ পড়তেন।

এ বিষয়ে ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এএসএম সায়েমের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, এমনটা হওয়া বিজ্ঞান সম্মত নয়। কোনরূপ সংরক্ষণমূলক ব্যবস্থা ছাড়া দাফনের ১০/১৫ দিনের মধ্যেই প্রাকৃতিক নিয়মেই লাশ পঁচে যাবার কথা। কিন্তু তা যখন হয়নি এটি মহান আল্লাহ পাকের কুদরতি!

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved ©www.rangpur24.com
Md Prince By rangpur24.com