ব্রেকিং নিউজ-
রংপুরে ব্রাকের হালাকা প্রকৌশলী শিল্পমালিকদের নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত** রংপুরে যৌন হয়রানির ঘটনায় আত্মহত্যা, ৫ আসামির দণ্ড ** নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর বৃত্তি পরীক্ষার বৃত্তির চেক ও সনদপত্র বিতরণ** রংপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাংস্কৃতিক চর্চা বাড়াতে হারমোনিয়াম ও তবলা ডুগি প্রদান** মিঠাপুকুরে ভিডিসি সংস্থার এ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত ** রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ১০** রংপুর হাজিরহাট থানা কর্তৃক ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ ** ফুলবাড়ীতে চলতি বরো ধান সংগ্রহ ** বাংলাদেশ ন্যাশনাল স্টুডেন্ট অর্গানাইজেশন রংপুরের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ** রৌমারী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অর্থ আদায়ের অভিযোগ**

একের পর এক উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েই যাচ্ছেন আমীর খসরু

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , বিশেষ বুলেটিন

5 October, 2018 -> 2:43 am.

একের পর এক উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়ে সরকারকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলার চেস্টা করছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। সম্প্রতি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দলীয় সমাবেশে ‘সরকার বিরোধী উসকানিমূলক’ বক্তব্য দিয়েছেন এমন অভিযোগ পুলিশের। এছাড়া নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভ্যন্তরে নিজের কর্মী ঢুকিয়ে দিতেও পরিকল্পনা করেন তিনি। তার পরিকল্পনার ফোনালাপ সে সময় স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। বর্তমানে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। সেখানে গিয়েও ক্ষান্ত হননি তিনি। বিদেশের মাটিতেও দিচ্ছেন সরকার বিরোধী উসকানিমূলক বক্তব্য। এদিকে গত ১৬ আগস্ট আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর ১২’শ কোটি টাকার অবৈধ সম্পত্তি রয়েছে বলে জানিয়েছিলো দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সভাপতি থাকাকালীন শুধু মাত্র শেয়ার বাজার থেকেই ৫০০ কোটি টাকা অবৈধভাবে হাতিয়ে নেন আমীর খসরু। সোনালী ব্যাংক থেকে ২’শ কোটি টাকার ঋণ তুলে তা আর ফেরত দেননি খসরু। এছাড়া সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের জোনাল চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় ৩’শ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগও রয়েছে। এমনকি বাংলাদেশ শিল্প ব্যাংক থেকে দুইশত কোটি টাকা গায়েব করারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এ প্রসঙ্গে দুদকের এক কর্মকর্তা বলেন, দুদকের এতো অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও আমীর খসরু কাউকে কিছু না বলে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছেন। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। দুর্নীতির অভিযোগ থাকার পরও রাষ্ট্র বিরোধী উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া বন্ধ হচ্ছে না খসরুর। তার বিরুদ্ধে যে সকল অভিযোগ রয়েছে, সেগুলোর ভিত্তিতে তাকে যেকোন উপায়ে বাংলাদেশে এনে আইনের আওতায় নিয়ে আসার চেষ্টা চলছে।