শিরোনাম-
কুড়িগ্রাম উলিপুরে স্কুল শিক্ষিকা অপহরনের চেষ্টা** 'হাসিনাকে হত্যা করতে গ্রেনেড হামলা হয়েছিল' রংপুর জেলা আওয়ামীলীগের দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় রেজাউল করিম রাজু ** দিনাজপুরে গোর-এ শহিদ ময়দানে ঈদের জামাত ৯টায়** ঠাকুরগাঁওয়ে চাচার হাতে ভাতিজি খুন** রংপুরে শেষ মূহুর্তে জমে উঠেছে ঈদের কেনাকাটা** রংপুরে ক্যান্সারে আক্রান্ত দীপ্ত টিভির সাংবাদিকের সুস্থতার জন্য ওয়াদুদ আলীর দোয়া কামনা ** রংপুরে ঈদের প্রধান জামাত সাড়ে ৮টায়** যেভাবে কোরবানির পশুর যত্ন নিতে হবে** লালমনিরহাট ২ বিএনপি র মনোনয়ন প্রত্যাশী তালিকায় ইন্জিনিয়ার কামাল এগিয়ে** লালমনিরহাটের কালীগঞ্জের বিভ্ন্নি গ্রামে ঈদুল আযহার নামাজ আদায় **

কুড়িগ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী নাসিমাকে গাজীপুর সেফহোমে পাঠানোর উদ্যোগ

অনলাইন নিউজ

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , কুড়িগ্রাম

8 August, 2018 -> 8:24 am.

গত কয়েক বছর ধরে শীত-গ্রীষ্ম-বর্ষা বা বৈরী প্রাকৃতিক পরিস্থিতিতে উন্মুক্ত আকাশে, রাস্তায় বা খোলা কোন শেডে রাত কাটাত শহরের মানুষের কাছে অতি পরিচিত মুখ নাসিমা বেগম (৪২)। বিড়বিড় করে আপন মনে কথা বলা, মুচকী একটু হাসা আর দিনভর হেঁটে বেড়ানোই ছিল তার কাজ। মাঝে মধ্যে কোথাও একটু বসে জিরিয়ে নিতো। এই বাক-প্রতিবন্ধী নারীটি কোথা থেকে এসেছেন কেউ জানেন না। শহরের পৌরবাজার, এলজিইডি বস্তি, মটর শ্রমিক ইউনিয়ন, জেলা রেজিস্টার অফিস, মটর মালিক সমিতি’র অফিস সংলগ্ন পাঁচশ গজ রাস্তা এলাকার মধ্যেই ছিল তার বিচরণ। অসহায় এই নারীটি প্রতিবছর কোন না কোন পাষন্ডের দ্বারা গর্ভবতী হয়ে অসুস্থ্য শরীর নিয়েই হেঁটে বেড়াতো। তখন তার মুখটা কষ্টে নীল হয়ে যেত। কেউ কিছু দিলে খেত না হলে বিরস বদনে কোথাও না কোথাও বসে থাকতো। পেটে ব্যাথা উঠলেই কারো দয়ায় ভর্তি করা হতো সদর হাসপাতালে। এবারো একই ঘটনা ঘটলেও তাকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাসের পর বুধবার দুপুরে প্রতিবন্ধী নারীটিকে দেখতে যান কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন। তিনি হাসপাতালে অসুস্থ্য প্রতিবন্ধী মা ও সন্তানটির খোঁজ-খবর নেন। এসময় তার সাথে ছিলেন সিভিল সার্জন ডা: এসএম আমিনুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি এড. আহসান হাবীব নীলু, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রাশেদুজ্জামান বাবু প্রমুখ। পরে জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন অসহায় এই নারীর পাশে দাঁড়িয়ে তাকে উন্নত চিকিৎসাসেবা দেবার পরামর্শ দেন এবং তাকে গাজীপুর শেফ হোমে পাঠানোর জন্য সমাজসেবা বিভাগকে নির্দেশ দেন। #