বিরামপুরে শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

মশিহুর

বিরামপুর প্রতিনিধি, দিনাজপুর

7 August, 2018 -> 4:40 am.

বিরামপুর উপজেলার পলিগংগাপুর গ্রামে সাত বছরের এক শিশুকে গাছে বেঁধে মারপিট করা হয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্যা ৫ হাজার টাকায় ঐ নির্যাতনের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছেন।সরজমিনে জানা গেছে, পলিগংগাপুর গ্রামের তাহিরুল ইসলামের প্রথম শ্রেণী পড়–য়া পুত্র হৃদয় (৭) সোমবার গ্রামের পাকা রাস্তায় অন্যান্য শিশুদের সাথে খেলা ধুলা করছিল। এসময় শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে ঐ গ্রামের ওবায়দুর রহমান (৪৮), তার পুত্র কামরুজ্জামান (২৫) ও স্ত্রী শিউলী বেগম (৪৪) শিমু হৃদয়কে চড় থাপ্পড় মেরে ধরে নিয়ে বাড়িতে লিচু গাছের সাথে দুইহাত বেঁধে গাছের ডাল দিয়ে মারপিট করে। খবর পেয়ে তাহিরুল তার শিশুপুত্রকে ছাড়িয়ে আনেন। তাহিরুল জানান, তিনি শিশুর চিকিৎসার জন্য ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে চাইলেও ওবায়দুরের লোকজন ডাক্তারের কাছে নিতে দেয়নি। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় মহিলা ইউপি সদস্যা হাসিনা আকতার হাসির বাড়িতে সন্ধায় শালিস বৈঠকে ওবায়দুরের ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মহিলা সদস্যা শিশু নির্যাতনের ঘটনা ও জরিমানায় অর্থদ-ের কথা স্বীকার করেছেন। এদিকে হৃদয়ের পিতা ওবায়দুর রহমান জানান, তিনি কোন টাকা পয়সা পান নাই। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।