লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বজ্রপাতে আহত আট

রকিবুল হাসান রিপন

ষ্টাফ রিপোর্টার, লালমনিরহাট

26 June, 2019 -> 12:48 am.

হাতীবান্ধা উপজেলায় বজ্রপাতে ৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৬ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে এবং বাকি ২ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে গেছে। আহতরা সবাই আশংকামুক্ত বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাত ৮ টার দিকে ঐ উপজেলার বড়খাতা, গড্ডিমারী ও সিঙ্গিমারী ইউনিয়নে বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। বজ্রপাতের সময় ভয়ে আতংকজনিত কারণে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে ধারণা করা হচ্ছে। মেডিকেলে ভর্তিরা হলেন- উপজেলার মিলন বাজার এলাকার রোহেল উদ্দিনের স্ত্রী সেলিনা খাতুন (২৪), গড্ডিমারী ইউনিয়নের মধ্য গড্ডিমারী এলাকার আবু তালেবের স্ত্রী রানু বেগম (২০), সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী খোতেজা বেগম (৬০), সিঙ্গিমারী এলাকার আব্দুল লতিফের স্ত্রী নুর নাহার বেগম (৩৩) এবং বড়খাতা ইউনিয়নের পুর্ব সারোডুবি এলাকার আমিনুর রহমানের কলেজ পড়ুয়া ছেলে মিরাজুল ইসলাম পরাগ হোসেন (১৭) ও পশ্চিম সারোডুবি এলাকার শামসুল হকের ছেলে সেলিম হোসেন (১৭), মধ্য গড্ডিমারী এলাকার আমের আলীর কলেজ পড়ুয়া মেয়ে আলেমা খাতুন (১৮) ও টংভাঙ্গা এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে মিরাজ (১৬)! এদের মধ্যে মধ্য গড্ডিমারী এলাকার আমের আলীর কলেজ পড়ুয়া মেয়ে আলেমা খাতুন (১৮) ও টংভাঙ্গা এলাকার মঞ্জু মিয়ার ছেলে মিরাজ (১৬) প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার যুগল কিশোর রায় ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বজ্রপাতে আহত ৮ জনের মধ্যে ৬ জনকে মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে এবং ২ জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে গেছে। মেডিকেলে ভর্তিকৃত ৬ জন রোগী আশংকা মুক্ত বলে জানান ঐ মেডিকেল অফিসার।