ব্রেকিং নিউজ-
হিলি স্থলবন্দরে ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে কাঁচামরিচ প্রতিকেজি ১০৩ /১০৫ টাকায়** হাকিমপুর পৌর সভায় কর্মবিরতি চলায় : বিপাকে পড়েছে পৌরবাসী** ফুলবাড়ীতে পাবলিক সার্ভিস দিবস পালন** এরশাদের কবর জিয়ারত করলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের নেতাকর্মীরা ** রংপুরে“কন্যা শিশুর জন্য নিরাপদ বিদ্যালয়” ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত** গোবিন্দগঞ্জে কিডনি পাচারকারি দালাল চক্রের বিরুদ্ধে মানববন্ধণ** রংপুর মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা সপ্তাহ পালনে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ** রংপুর মহানগর যুবলীগ নেতা বাশার মুরাদের নেতৃত্বে নগরীতে আনন্দ র‌্যালী** রংপুরে কাঁচা মরিচের ‘দ্বিগুণ ঝাল’** রংপুরে হারিয়ে যাচ্ছে দেশি সুজি কচু**

গাজীপুরে সাংবাদিকের উপর হামলা

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , সারা বাংলা

1 June, 2019 -> 3:15 am.

গাজীপুরের কালীগঞ্জের আজমতপুর বিশ্বরোড এলাকায় মো. খোরশেদ আলম খান নামে এক সাংবাদিকের ওপর হামলা চালিয়ে ক্যামেরা, মোবাইল ও নগদ অর্থ ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার(৩১ মে) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে এই ঘটনা ঘটেছে। মো. খোরশেদ আলম খান বেসরকারি টিভি চ্যানেল আনন্দ টিভির কালীগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি। তাকে গুরুতর আহতাবস্থায় কালীগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, কাপাসিয়া থানার তিনশনিয়া গ্রামের বাসিন্দা জাবেদ হোসেনের ছেলে আরিফ হোসেন জাঙ্গালিয়া ইউনিয়নের আজমতপুর বিশ্বরোড এলাকায় তেলের ব্যবসা করেন। তার মা আনসার বাহিনীতে চাকরি দেওয়ার কথা বলে একই এলাকার লিটন দাসের পরিবারের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা নেন। লিটন দাস আজমতপুর বিশ্বরোডে সেলুনের দোকান চালান। বৃহস্পতিবার আরিফের কাছ থেকে লিটন দাস তার পাওনা টাকা চান। এ সময় আরিফ উত্তেজিত হয়ে লিটনকে মারধর করেন। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি সমাধানের জন্য শুক্রবার বিকেলে সালিশ বৈঠকের দিন ধার্য করেন। সালিশে লিটন দাসকে মারধর করার অপরাধে আরিফকে ক্ষমা চাওয়ানো হয়। কিন্তু পাওনা টাকার বিষয়টি কোনো ধরনের সুরাহা না করে সালিশ বৈঠক শেষ করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ফারুক খান। তখন সালিশে উপস্থিত সাংবাদিক খোরশেদ পাওনা টাকার বিষয় কেন ফয়সালা করা হয়নি তা মেম্বারের কাছে জানতে চান। এ সময় মেম্বারের উসকানিতে তার চাচাতো ভাই মো. খোরশেদ সাংবাদিক খোরশেদকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। এক পর্যায় সহযোগীদের নিয়ে সাংবাদিক খোরশেদের ওপর হামলা চালান। আহত খোরশেদ আলম খান বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ফারুক খানের উপস্থিতিতে তার আপন চাচাতো ভাই খোরশেদ সহযোগীদের নিয়ে আমার ওপর হামলা চালায়। এ সময় আমার ক্যামেরা, মোবাইল ও নগদ অর্থ হামলাকারীরা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। সালিশ বৈঠকে লিটন দাসের পাওনা টাকার কোনো ফয়সালা না করার কারণ জানতে চাইলে মেম্বারের উসকানিতে তার ভাই লোকজন নিয়ে এই হামলা চালিয়েছে। কালীগঞ্জ থানার ওসি মো. আবু বকর মিয়া বলেন, যারা সাংবাদিক খোরশেদের ওপর হামলা চালিয়েছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের শীঘ্রই গ্রেফতার করা হবে।