ঠাকুরগাঁওয়ে কষ্টি পাথর নিয়ে আত্মগোপনে

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , সারা বাংলা

23 May, 2019 -> 1:17 am.

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানার লেউটিহারি পুকুরে গত ২১ মে (মঙ্গলবার) আনুমানিক দুপুর ১টায় বালু উত্তোলনের সময় পরশুরাম নামে এক শ্রমিক একটি কষ্টি পাথরের মূর্তি পায়। এতে সাথে থাকা শ্রমিক সুমন সহ অন্যান্য শ্রমিকরা মূর্তিটি দেখতে পায়। পরশুরাম রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের কশালগাঁও গ্রামের ছবিলালের ছেলে বলে জানা যায় । সুমনের সাথে কথা বলে জানা যায়, মহেন্দ্র ড্রাইভার ইসমাইল, মালিক ধীরেন ও আরো ৩ জন শ্রমিক পরশুরামের বাড়ীতে মূর্তিটি রেখে দেয় এবং পরশুরাম এবং তার বড় ভাই জতীন বলেন আমরা এটাকে পূজা করবো তাই আমাদের বাড়ীতে মূর্তিটি থাক। কিন্তু মূর্তি পাওয়ার বিষয়টি এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পরে। কশালগাঁও ওয়ার্ড এর ইউপি সদসদস্য আবুল হোসেনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তার সাথে (পরশুরাম) আজ দুপুরে একবার কথা হয়েছিল এবং সে দেখা করবে বলে জানিয়েছিল কিন্তু তারপর হতে পরশুরামের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। এতে মূর্তি পাওয়ার বিষয়টি রুহিয়া থানা পুলিশ জানতে পারলে গতকাল রাত ১০টার সময় মূর্তি উদ্ধারের জন্য পরশুরামের বাড়িতে পুলিশ তল্লাশী চালায় কিন্তু পরশুরামকে বাড়িতে পায়নি। এ ব্যাপারে রুহিয়া থানার ওসি (তদন্ত) বাবলু কুমার রায়ের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মূর্তি উদ্ধারের বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য এবং চেয়ারম্যান দায়িত্ব নিয়েছেন, যদি তারা ব্যার্থ হয় তাহলে আমরা অভিযানে যাবো.