ব্রেকিং নিউজ-
রংপুরে যৌন হয়রানির ঘটনায় আত্মহত্যা, ৫ আসামির দণ্ড ** নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর বৃত্তি পরীক্ষার বৃত্তির চেক ও সনদপত্র বিতরণ** রংপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাংস্কৃতিক চর্চা বাড়াতে হারমোনিয়াম ও তবলা ডুগি প্রদান** মিঠাপুকুরে ভিডিসি সংস্থার এ্যাডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত ** রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ১০** রংপুর হাজিরহাট থানা কর্তৃক ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ ** ফুলবাড়ীতে চলতি বরো ধান সংগ্রহ ** বাংলাদেশ ন্যাশনাল স্টুডেন্ট অর্গানাইজেশন রংপুরের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ** রৌমারী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অর্থ আদায়ের অভিযোগ** গঙ্গাচড়ায় এসডিজি বাস্তবায়ন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত**

গাইবান্ধায় পিতৃত্বের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলন

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , গাইবান্ধা

11 March, 2019 -> 10:14 am.

স্ত্রীর অধিকার ও ছেলের পিতৃত্বের দাবীতে সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে সোমবার ১১ মার্চ দুপুরে আল মদিনা সুপার মার্কেট (গোরস্তান মোড়) প্রেসক্লাব গাইবান্ধায় পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলন করেন, গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলা সদরের বৈরী হরিনমারী গ্রামের মৃত নিজাম উদ্দিন মন্ডলের ছেলে বাদশা মিয়া। বাদশা মিয়া এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের জনৈক আমেনা বেগম ২য় স্ত্রীর অধিকার ও তার ছেলে আলামিন পিতৃত্বের দাবীতে গত ৫ মার্চ গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেন। যা পরদিন ৬ মার্চ বিভিন্ন পত্রিকা, অনলাইন ও ফেসবুকে প্রচার ও প্রকাশ হয়। বাদশা মিয়া এসব অভিযোগ মিথ্যা,বানোয়াট,ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত বলে দাবী করেন এবং তাকে (বাদশা মিয়া) জড়িয়ে সংবাদ সম্মেলনের বরাত দিয়ে যেসব খবর প্রকাশ হয়েছে তাও সত্য নয় বলে জানান। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাদশা মিয়া জানান, বিগত ০১/০৮/১৯৯৪ ইং সালে একটি কুচক্রী মহল কর্তৃক বাড়াইপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের মেয়ে আমেনার সাথে রেজিষ্ট্রী বিয়ে হয়। পরে ১১/০৮/১৯৯৪ ইং তারিখে তালাক প্রদান করি। তাই দীর্ঘ ২৪ বছর পর স্ত্রী ও সন্তানের দাবী ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত ছাড়া আর কিছু নয় বলে বাদশা মিয়া জানান। সংবাদ সম্মেলনে বাদশা মিয়া প্রকৃত ঘটনা তুলে ধরতে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন। সাংবাদিক সম্মেলনে জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।