ব্রেকিং নিউজ-
নতজানু নীতি পরিহার করে তিস্তা-সহ ৫৪টি অভিন্ন নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় করুন--------কমরেড খালেকুজ্জামান** রংপুরে দুদিন ব্যাপী ফ্রি ডেন্টাল ক্যাম্প উদ্ভোধন ** রংপুরে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এর ৯০ তম জন্মদিন পালন ** রংপুরে নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানব্বন্ধন সমাবেশ ** উলিপুরে ‘দৈনিক ভোরের ডাক’ পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকা পালিত** রংপুরে সিলেকশন গ্রেড এর দাবিতে মানব বন্ধন ও পরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও ** কাদেরের বাইপাস সার্জারি চলছে, দেশবাসীর দোয়া কামনা** রংপুর জেলা রেস্তোরাঁ শ্রমিক ইউনিয়নের বিশেষ সাধারন সভা অনুষ্ঠিত** লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় অগ্নিকান্ডে প্রায় ৯ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি** রংপুরে আ.লীগের প্রার্থীকে গ্রেপ্তারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ **

বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস আমাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন, বললেন মোকাব্বির

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , বিশেষ বুলেটিন

5 March, 2019 -> 8:00 am.

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরাম থেকে নির্বাচিত দুই সংসদ সদস্য ঐতিহাসিক ৭ মার্চ শপথ নেবেন- এমন ঘোষণা দেয়ার পরই বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে বিজয়ী প্রার্থী মোকাব্বির খান। জানা যায়, ৩ মার্চ রাত ৮টায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস গণফোরাম থেকে বিজয়ী প্রার্থী মোকাব্বির খানকে টেলিফোনে জাতীয় বেইমান আখ্যা দিয়ে দেখে নেয়ার হুমকি প্রদান করেন। এ বিষয়ে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান বলেন, ঐক্যফ্রন্টের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ৩ মার্চ রাতে হঠাৎ একটি টেলিফোন নম্বর থেকে আমার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে কল দেন। এসময় তিনি শপথের বিষয়ে আমার অবস্থান জানতে চান। আমি যখন শপথের বিষয়ে আমার আগের অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করি, এতে তিনি প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হন। সেসময় টেলিফোনে আমাকে মির্জা আব্বাস অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। মোকাব্বির খান আরও বলেন, বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস আমাকে বারবার জাতীয় বেইমান বলে সম্বোধন করে আমার আত্মসম্মানে আঘাত করেছেন। তিনি একাধিকবার আমাকে পরামর্শ দিয়েছেন যাতে আমি ৭ মার্চ শপথ গ্রহণ করতে না যাই। যখন আমিও আমার অবস্থানে অনড় বলে তাকে স্পষ্ট জানিয়ে দেই তখন ঢাকায় প্রবেশ করলে আমার ক্ষতি হতে পারে বলে মির্জা আব্বাস আমাকে হুমকি প্রদান করেন। হুমকির ব্যাপারে আইনের সাহায্য নিবেন কিনা জানতে চাইলে গণফোরামের এই বিজয়ী প্রার্থী বলেন, আমি অবশ্যই মির্জা আব্বাসের এই গর্হিত কাজের ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নিব। আর সরকারকে বলবো, শপথের বিষয়ে আমাদের সহযোগিতা ও নিরাপত্তা দেয়ার জন্য। মূলত বিএনপির শীর্ষ নেতা তারেক রহমান অনেক লোক মারফত গণফোরাম থেকে বিজয়ী দুই জনকে হত্যার জন্য বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করছেন। অবিলম্বে আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। মোকাব্বির খানকে হুমকির বিষয়টি গণফোরাম থেকে নির্বাচিত অপর সংসদ সদস্য সুলতান মুহাম্মদ মনসুর আহমেদকে অবহিত করলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, বিএনপি নেতারা আমাদের বিভিন্নভাবে মানসিক চাপে রাখার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তারা জানেন না, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ধারক ও বাহক। আমাদের ৭১’এ পাক-বাহিনী অস্ত্রের মুখে জিম্মি করেও দাবিয়ে রাখতে পারেনি। আর তাদের মতো জনবিচ্ছিন্ন নেতারা আমাদের শপথ থেকে বিরত রাখতে পারবেন এটা হাস্যকর বিষয় ছাড়া কিছু নয়। মির্জা আব্বাসের মতো নেতারা আমাদের হুমকি দিয়ে শপথ থেকে বিরত রাখতে পারবেন না। উল্লেখ্য, শপথ নেওয়ার জন্য ২ মার্চ স্পিকারকে চিঠি দেন গণফোরামের এ দুই সদস্য। স্পিকারের দফতর রোববার চিঠি পেয়েছে। চিঠি পাওয়ার পর তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আগামী ৭ মার্চ সকাল ১১ টায় শপথের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানা যায়। গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুলতান মুহাম্মদ মনসুর আহমেদ মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে বিএনপির নির্বাচনী প্রতীক ধানের শীর্ষ এবং মোকাব্বির খান সিলেট-২ আসনে গণফোরামের প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে নির্বাচিত হন।