বাধা সত্ত্বেও ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে গেলেন ফখরুলরা, যাননি রিজভী

নিউজ ডেক্স

রংপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম , বিশেষ বুলেটিন

5 March, 2019 -> 7:53 am.

লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশ অমান্য করেই গুরুতর অসুস্থ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে গিয়েছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ ও ড. মঈন খান। দলীয় সূত্র বলছে, ফখরুলসহ ওই দুই নেতা ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যাওয়ার জন্য বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ তারেকপন্থী নেতাদের উদ্বুদ্ধ করেন। কিন্তু রিজভী, গয়েশ্বরসহ ওই নেতারা তাতে সাড়া দেননি। পরে মান-অভিমান ভেঙ্গে মির্জা ফখরুল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান। জানা যায়, ৩ মার্চ ভোরে ওবায়দুল কাদেরের হঠাৎ শ্বাসপ্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দিলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করার পর মির্জা ফখরুল ইসলামী আলমগীরসহ অন্যান্য নেতারা সিদ্ধান্ত নেন যে, তারা ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যাবেন। বিষয়টি রিজভীর আহমেদসহ অন্যান্য নেতাদের জানানো হলে সঙ্গে সঙ্গে রিজভী তারেক রহমানের সঙ্গে স্কাইপিতে অনুমতি চাইলে তারেক রহমান বিষয়টি নাকচ করে দেন। তারেক জানান, ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে গেলে বিগত সময়ে কোকোর মৃত্যুর সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফিরিয়ে দেয়ার প্রতিশোধের বিষয়টি আসতে পারে। ফলে রাজনৈতিক অঙ্গনে সমালোচনার মুখোমুখি হতে পারে বিএনপি। তাই তাকে দেখতে যাওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। সূত্র বলছে, তারেক রহমানের সিদ্ধান্তের বিষয়ে রিজভী আহমেদ মির্জা ফখরুলসহ অন্যান্য নেতাদের জানালে তারা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের খাতিরে তারেক রহমানের সিদ্ধান্ত অমান্য করে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান। বিষয়টি রিজভী আহমেদ পরপরই তারেক রহমানকে অবগতও করেছেন বলে জানা গেছে। সেসময় মির্জা ফখরুল ইসলামদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়ে রাজনৈতিক সমালোচনা এড়িয়ে যেতে রিজভীকে ওবায়দুল কাদেরের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে বক্তব্য দিতে বলেন তারেক। সে মোতাবেক ৪ মার্চ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির দাবিতে দেয়া কর্মসূচি ঘোষণা করার সময় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের সুস্থতা কামনা করেন রিজভী।