December 1, 2020, 3:15 pm

রংপুরে স্বেচ্ছায় জীবন বাজি রেখে কোভিডের স্যাম্পল কালেকশন যোদ্ধার আকুতি

Reporter Name
  • Update Time : Tuesday, November 17, 2020
  • 408 Time View

আমি কারো কোন ক্ষতি কিংবা কাউকে ছোট করার জন্য এ লেখাটি করছি না। আমি আমার জাতিগত দিক থেকে বিবেকের তাড়নায় এই কথাগুলো তুলে ধরলাম। আজ নিম্নোক্ত আদেশটি দেখে সত্যিই খারাপ লাগতেছে,হ্যাঁ ভালো লাগতো যদি এটা একবারে শুরুতেই দেখতে পেতাম অথবা সব(অর্জিনাল) স্বেচ্ছাসেবীরা সরাসরি নিয়োগ পেতো। হ্যাঁ,আমি আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। আমার জানামতে যে ১৪৫+৪৯ জন ২ দফায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে সরাসরি নিয়োগ পাইছে তাদের অনেকেই বিভিন্ন প্রজেক্ট থেকে নিয়োগকৃত বেতনভোগী হিসেবে কর্মরত ছিলো,মুলত তারা টাকার বিনিময়ে কাজ করেছে। আমার জানামতে, স্বেচ্ছাসেবী তাকেই বলে যারা,বিনাস্বার্থে (দেশ ও জাতির জন্য) নিজের জীবন বাজি রেখে কোন কাজে নিয়োজিত থাকে। তাহলে যারা বিভিন্ন প্রজেক্টের কন্টাক্ট এ টাকার বিনিময়ে কাজ করেছে কেমনে তারা স্বেচ্ছাসেবী হয়?

হোক তাও মেনে নিতাম যদি সত্যিকারের স্বেচ্ছাসেবীরা সবাই নিয়োগ পেতো। আমি আমার কথাই বলি, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল,কোভিড হাসপাতাল, রংপুরের সমস্ত প্রশাসন এবং রংপুর সিটি কর্পোরেশন এ আমরা কয়েকজন ল্যাব টেকনোলজিস্ট ২৪/০৩/২০২০তারিখ থেকে স্বেচ্ছায় জীবন বাজি রেখে কভিডের স্যাম্পল কালেকশন করে যাচ্ছি অদ্যাবধি বিনা স্বার্থে তাহলে আমরা কিদোষ করলাম? আমি এখন পযন্ত প্রায় ৮০০০ রোগীর(COVID-19) নমুনা কালেকশন করেছি। আর আমার পরিচিত কয়েক জন আছে যাদের চাকরি সরকারী করন হযেছে, যারা কি না চাকরিতে যোগদানের আগে জানতোই না কি ভাবে সেম্পল কালেকশন করতে হয় ।

অথচ তারাই জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে সুবিধা ভোগী। আর আমরা এখন পরগাছা, আমদের দেখলে তারাই মুচকি হাসে। তবে আল্লাহর কাছে এতটুকু সুক্রিয়া যে তিনি আমাকে দেশ সেবার জন্য সুযোগ করে দিযেছিলেন। যে দিন RAB-13 এর কোম্পানি কমান্ডার রেজাউল স্যার আমাকে সেলুট দিয়ে বলেছিলেন আপনারাই দেশের প্রকৃত যোদ্ধা, আপনাদেরকে বাংলাদেশ কখনও ভুলবে না। যে দিন SP বিপ্লব স্যার শুভেচ্ছা চিঠিতে লিখে ছিলেন “করোনার বিরুদ্ধে সম্মুক সারির যোদ্ধা হিসেবে আপনাকে জেলা পুলিশ রংপুরের পক্ষ থেকে সশ্রদ্ধ সালাম।

যে দিন ডিভিশনাল ডিরেক্টর (হেলথ্) স্যার বলেছিলেন তোমরা দেশের জন্য যা দিছো” তোমাদের কিছু দিতে পারবোনা সুধু একবুক ভালোবাসা ছাড়া।যে দিন সম্মানিত ডিসি স্যার রংপুর বলে ছিলেন তোমার মন দিয়ে কাজ করে যাও আমি নিজেই প্রধানমন্ত্রী বরাবর তোমাদের জন্য জোর সুপারিশ করবো। যে দিন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান সাস্থ কমকর্তা ডাঃ কামরুজামান ইবনে তাজ স্যার বলেছিলেন তোমার দেশকে যে সেবা দিচ্ছো তোমাদের ভালোর জন্য আমার শেষ রক্ত বিন্দু দিয়ে চেস্টা করে যাবো।

যে দিন ৭১এর একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এই করোনার সামাজিক দূরত্ব ফেলে আমাকে বুকে জড়িয়ে বলে ছিলেন আমার তো শত্রুর গতিবিধি শনাক্ত করে যুদ্ধ করেছি, তোমার ৭১ এর চেয়েও বড় বীরসেনা, তোমার অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছ। যে দিন লাশের পাসে তার আপজনেরা ভয়ে যেতক না, আমরা গিয়ে জানাজা দোয়া এবং দাফনকাজ শেষ করে ছলছল চোখ নিয়ে বাসায় ফিরতাম। সে দিনেই আমি আমার মন টাকে বলে দিয়েছি রেজা তুই তোর প্রাপ্য পেয়ে গাছিস।

আমি সার্থক দেশের জন্য একটু সেবা করার সুযোগ পাওয়ায। তবে হ্যাঁ এটাও সত্য,আমরা যারা সত্যিকারের #স্বেচ্ছাসেবী আমরা কখনো বিনিময় আশা করি নাই,তাই বলে আমাদের নাম ভাঙ্গিয়ে অন্যরা ফায়দা লুটে নিচ্ছে-নিবে, এটা কেমন কথা? জানি, অনেকেরি কাছে এই পোস্টটি খারাপ লাগবে,তাদেরকে বলছি একটু নিজের বিবেককে জিজ্ঞেস করুন তো ? আপনার বিবেক কি বলে ?

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category